Categories
যাপিত জীবন

নানা ভাইয়ের সাথে

নানা দাদাদের সাথে নাতি-নাতনিদের সম্পর্ক বুঝি খুব মিষ্টি হয়।💓💓💓


মনে পড়ে আমি আমার নানা ভাইয়ার চুল হীন মাথায় এবং দাঁড়িতে হাত বুলাতে খুব ভালোবাসতাম। নানা ভাইয়ের সাথে গল্প করে বেশ আনন্দ পেতাম। নানা ভাইয়াও আমাকে এতগুলো আদর করতেন। বংশের সবার বড় নাতনি বলে কথা। আল্লাহ আমার নানাকে বেহেশতের সর্বোচ্চ স্থানে জায়গা দিক, আমিন।

এদিকে আমার আব্বু তার নাতি নাতনীদের নিয়ে বেশ ঘোরাঘুরি করেছেন । তাদেরকে সময় দিয়েছেন। এটা সেটা কিনে ও দিচ্ছেন, যেগুলো বাচ্চাকালে আমরা কল্পনাও করতে পারতাম না 🙄


ছোটবেলায় আব্বু যখন বাইরে থেকে আসতো, দৌড়ে যেতাম হাতে করে কি এনেছে দেখার জন্য। সব সময় দেখতাম তার হাতে থাকত বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী ফল। চিপ্স, চকলেট, খেলনার জন্য বায়না করে বছরে একবার দুবার হয়তো সফল হতাম!! এদিকে সেই আব্বু যখন নানাভাই- দাদাভাই হলেন, তখন তিনি নাতি-নাতনিদের দুহাত ভরে এই সব জিনিসপত্র কিনে দিচ্ছেন!!! ভালোবাসার রকমফের 🥰🥰🥰


আব্বু ঘুরে বেড়াতে বেশ পছন্দ করেন। নাতি নাতনি দের নিয়ে তাই শিশু পার্ক থেকে ঘুরে এলেন। আমার ছানাপোনা গুলো এবার ব্যাপক আনন্দ নিয়ে ছুটি কাটালো, আলহামদুলিল্লাহ।